Home / ফ্রী ইন্টারনেট / জিপি দিয়ে ফ্রী ইন্টারনেটের সমস্যার সমাধান ।

জিপি দিয়ে ফ্রী ইন্টারনেটের সমস্যার সমাধান ।

আমরা অনেকেই অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত ডিভাইস ব্যবহার করছি। পাশাপাশি যারা পারছি, Grameenphone এর MMS(SSL) Proxy দিয়ে ফ্রী নেট ব্যবহার করছি। এই ফ্রী নেট এর কনফিগারেশন সেটিংস নিয়ে যথেষ্ট টিউন হয়েছে, তাই আমি এই দিকে যেতে চাচ্ছি না। আমার প্রশ্ন হল, আপনি যে ফ্রী নেটের কনফিগারেশন সেট করলেন, একইভাবে আপনি কতটুকু ফ্রী আনলিমিটেড ব্রাউজ+ডাউনলোড করতে পারছেন? আপনাকে ব্রাউজ কিংবা ডাউনলোড করার জন্য নিশ্চয়ই অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়!!!

ভালো কথা, অনেকে এই ফ্রী নেটের জন্য আবার তাদের শখের ডিভাইসটিকে রুট পর্যন্ত করে ফেলেছেন! কারণ কি? উত্তর- ফ্রী নেটের সফটওয়্যার Orbot তো রুট ছাড়া কাজ ই করে না। আবার, যে গুটি কয়েক হ্যান্ডসেটে রুট ছাড়া কাজ করে, সেগুলোতেও Orweb Browser ছাড়া অন্য কোন ব্রাউজারে HTTP অ্যাড্রেসগুলোতে এক্সেস দিবে না। তারপর, আবার ডাউনলোড দিলে কোন রিজিউম সাপোর্ট নাই।

এখন, Orbot ছাড়া যদি নেট ব্যবহার করেন, তাহলে আপনি নিশ্চয়ই কোন HTTPS Proxy Server ব্যবহার করছেন, কারণ সার্ভার দিয়ে আপনাকে HTTP Address ভিজিট করতে হবে। আচ্ছা, এখন ডাউনলোড এর সময় কি করেন? Droid Loader Download Manager/ Andro Get বা এই জাতীয় কোন ডাউনলোডার কে ফাইল দেখিয়ে দেন, তাই না? কিন্তু সেই ব্যপার টা কি করে সম্ভব!!! টিটি তে কে যেন একটি পদ্ধতি বাতলে দিয়েছিলেন যে, একটি মোডিফাইড Opera Mini তে ডাউনলোডের সময় Share বাটন এ ক্লিক করে ওই ডাউনলোডার কে দেখিয়ে দিতে হয়! সত্যি কথা বলতে কি, শুধু আমি না, আমার ফ্রেন্ডরাও এই পদ্ধতিটি ব্যবহার করতে পারেনি।

তাহলে,জিপির এই ফ্রী নেটের সমস্যাগুলো হল-

১..MMS Proxy,

২..৩মিনিট পরপর অটো-ডিস্কানেক্ট

সমাধানঃ

– আমাদের এমন একটি Proxy Server ব্যবহার করতে হবে, যেন সেটি তাড়াতাড়ি পেজ লোড করে। কারণ, অধিকাংশ Server ই লোড হতে অনেক সময় নেয়।
– ওই Proxy Server থেকে ডাউনলোড কৃত ফাইলগুলোকে যেন ইচ্ছেমত Pause/Resume করা যায়।
এবং এমন একটি ব্রাউজার অথবা সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে যেন সেটি নেট ডিস্কানেক্ট হলেও ডাউনলোড যেন Pause হয়, এবং কানেক্ট হওয়ার পর যেন অটো Resume হয়।
– এমনই সুবিধাসম্বলিত ব্রাউজার হচ্ছে UC Browser 9.0.2_39। ব্রাইজারটি  এখান থেকে ডাউনলোড করে নিন।
ইন্সটল করে নিন। ব্রাইজার ওপেন করুন। অ্যাড্রেস বারে লিখুনঃ https://www.sslsecureproxy.com বা https://www.webproxy.li
তারপর যে পেজ ওপেন হবে তার মাঝখানে যে কোন এড্রেস লিখুন আর ব্রাউজ করুন।

কিছু কিছু ওয়েবসাইট আপনি ডেইলি ব্যবহার করেন, তাই না? তাহলে এক কাজ করতে পারেন। উপরের দুটির যে কোন একটি তে গিয়ে আপনার প্রতিদিন এর ব্যবহার করা ওয়েব এড্রেসগুলো লিখুন, আর পেজ লোড হওয়ার পর, আপনি ওই পেজটিকে আপনার কাঙ্ক্ষিত ওয়েবসাইট এর নামে বুকমার্ক করে রেখে দিন। পরবর্তিতে, আপনাকে প্রতিবার ওই সার্ভারগুলোতে কষ্ট করে ঢুকতে হবে না। আপনার বুকমার্ক করা পেইজটিকে জাস্ট Refresh/Reload করুন, বাস কেল্লাফতে।
এই ব্রাউজারের যে কয়েকটি অনন্য বৈশিষ্ট আছে তার মধ্যে একটি হল, এই ব্রাউজারে Facebook পেইজগুলো একদম অ্যান্ড্রয়েড এর Facebook এর মতো লোড হয়।
Facebook এর জন্য https://www.facebook.com ব্যবহার করুন।
এবার, আসুন ডাউনলোড এর কথায়। আমি সবচাইতে ভালো রিজিউম সাপোর্ট পেয়েছি https://www.sslsecureproxy.com এই ওয়েবসাইট থেকে। যখন ডাউনলোড দিতে যাবেন, তখন একটি পপ-আপ উইন্ডো আসবে, এবং আপনার কাছে পারমিশন চাইবে

Please select an option-

1. Play Online 2. Watch Offline

আপনি ২নং অপশনটি সিলেক্ট করুন। এবার, আপনি কোথায় এবং কি নামে সেভ করে রাখবেন তা দেখিয়ে দিন। ডাউনলোড করা শুরু করে দিন। যখন, নেট অটো-ডিস্কানেক্ট হয়ে যাবে, তখন নিচের মতো একটি পপ-আপ উইন্ডো আসবে-

WiFi has been disconnected!

Continue your download?

1. Yes 2. No

১নং অপশন সিলেক্ট করুন। দেখুন, রিজিউম হয়ে গিয়েছে!!! এখন, নেট মামা যতবারই ডিস্কানেক্ট হোক না কেন, আপনার ডাউনলোড হতেই থাকবে……হতেই থাকবে!!! ও হ্যাঁ, আপনি কিন্তু ব্রাউজার Exit করবেননা। তা হলে ডাউনলোড Paused হয়ে থাকবে। আপনি জাস্ট Home বাটন চেপে বের হয়ে আসুন। আর, শেষ কথা হল- আপনি যখন, Smartphone অফ করে অন করবেন এবং তারপর Paused ডাউনলোড কে Resume করতে যাবেন, তখন হয়তবা ফাইলটির নাম পরিবর্তন হয়ে .php হতে পারে। অর্থাৎ কোন গানের ফাইল .mp3 পরিবর্তন হয়ে .php হতে পারে। সেক্ষেত্রে, ডাউনলোড কমপ্লিট হলে সেই ফাইল টি Rename করে .php এর জায়গায় .mp3 লাগালেই হবে। ব্যাস, ঝামেলা শেষ।

নোট – টিউনটি ইন্টারানেট থেকে সংগৃহীত । শুধুমাত্র শিক্ষার উদ্যেশ্যে শেয়ার করা হয়েছে।  বিষয়বস্তুর কোন রুপ দায় ভার আইটি বাড়ি এর নয়।

The following two tabs change content below.

আব্দুল কাদের (এডমিন)

নিজের সম্পর্কে বলার তেমন কিছুই নেই, খুব সাধারন একটি ছেলে। লিখাপড়া করছি কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টে। ছোটবেলা থেকেই টেকনোলোজির প্রতি ভীষণ আগ্রহ ছিল। তাই শেষপর্যন্ত টেককেই বেছে নিয়েছি পথ চলার সঙ্গী হিসেবে। কাজ করি ওয়েব ডেভেলপিং এবং ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে। ভালবাসি আইটি সংক্রান্ত নতুন কিছু শিখতে। আমার শেখা তখনই স্বার্থক যখন সেটা আমি আরেকজনের মাঝে ছড়িয়ে দিতে পারব। আর এই জন্যই প্রতিষ্ঠা করেছি আইটি বাড়ি। ইনশাআল্লাহ আমাদের স্বপ্নের লাল সবুজের ডিজিটাল বাংলাদেশ হবেই হবে।

2 comments

  1. Nice post! I will try it. Thank you for this post.

  2. BIJOY RANJAN DUTTA

    খূব ভালো লাগলো । SEO ভেডীও দেখে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *