ফ্রীল্যান্সিং নিয়ে ৭ টি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, ৭ নং তথ্যটি আপনাকে জানতেই হবে…

ইন্টারনেট থেকে আয়? বা ফ্রীল্যান্সিং? আসলে কি এটা, ঠিক কি ই বা জানতে হবে এখান থেকে আয় করার জন্য? মাত্র কয়েক লাইনে জেনে নিন পুরো হিস্টোরি, সাথে থাকছে গাইডলাইন….

সঠিকভাবে কাজ শিখে গড়তে পারেন ফ্রীল্যান্সিং ক্যারিয়ার!!
সঠিকভাবে কাজ শিখে গড়তে পারেন ফ্রীল্যান্সিং ক্যারিয়ার!!

মাত্র ৫ মিনিট ধৈর্য্য ধরে পড়ুন এবং জেনে নিন ফ্রীল্যান্সিং এর আসল সত্যিটাঃ

  1.  ফ্রীল্যান্সিং মানে হচ্ছে একজনের কাজ অর্থের বিনিময়ে অন্য কাউকে হায়ার করে তাকে দিয়ে করানো। দেশ বিদেশের ছোট-বড় অনেক কোম্পানীই তাদের খরচ কমানোর জন্য পার্মানেন্টলি ওয়ার্কার না রেখে ইন্টারনেটের মাধ্যমেই তাদের কাজগুলো কোন লোক দিয়ে করিয়ে নেয়, যারা এই কাজ গুলো দেয় তাদের বলে বায়ার বা ক্লাইন্ট, আর যারা এই কাজগুলো করে তাদের বলে ফ্রীল্যান্সিং, আর এই পুরো প্রসেসকে বলা হয় ফ্রীল্যান্সিং
  2.  অনেকের কাছেই কিন্তু এইটা খুব কঠিন মনে হয়, অনেকে ভাবেন নেটে কাজ করা মানে না জানি কত্তো কঠিন কিছু?!!
    • কিন্তু বিষয়টা মোটেও জটিল কিছু না, এভাবে ভাবুনতো- ধরুন ফেসবুকে আপনি ফ্রেন্ডদের সাথে চ্যাট করতে পারেন, ভিডিও তে কথা বলতে পারেন এটা কি কঠিন কিছু? মোটেও নয়, ঠিক একই ভাবে ক্লাইন্টদের সাথেও চ্যাট করার মাধ্যমে কাজ নিতে পারবেন এবং আপনার কম্পিউটারে কমপ্লিট করে তাকে জমাও দিয়ে দিতে পারবেন
  3.  এইভাবে কাজ সম্পন্ন করার পরে ক্লাইন্ট আপনাকে টাকা পরিশোধ করবে- টাকা নিয়ে আসার সবচাইতে সহজ উপায় হচ্ছে- লোকাল ব্যাংক ট্রান্সফার, এর মাধ্যমে আপনি ক্লাইন্টের টাকা সরাসরি আপনার ব্যাংকে ট্রান্সফার করতে পারবেন, তবে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট অবশ্যই অনলাইন ভিত্তিক হতে হবে, উল্লেখ্য, আমাদের দেশের সকল বেসরকারী ব্যাংক ই অনলাইন সাপোর্টেড
  4.  অনেকেই বলে থাকে পেপাল ছাড়া টাকা তোলা যায় না, কিন্তু কথাটা ১০০% সত্যি নয়, খুব বড় ধরনের অ্যামাউন্ট এর জন্য সাধারণত পেপাল লাগে কিন্তু ছোটখাট এমনকি কয়েক লাখ টাকা পর্যন্ত আপনি সরাসরি ব্যাংক এই নিয়ে আসতে পারবেন কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই এবং এছাড়াও ফ্রী Payoneer মাস্টার কার্ড দিয়েও পেমেন্ট তোলা যায় খুব সহজেই
  5.  ফ্রীল্যান্সিং কোন স্বল্প সময়ে ধনী হওয়ার মন্ত্র নয়, পরিশ্রম করতে পারলেই কেবল এই সেক্টরে আসতে হবে, এখানে আসার সময় হাতে কমপক্ষে ৬ মাস থেকে ১ বছরের প্ল্যান নিয়ে আসতে হবে
  6.  সঠিক ভাবে পরিশ্রম করতে পারলে ৩ মাসেও ইনকাম করা সম্ভব আর সঠিকভাবে না করতে পারলে ৩ বছরেও টাকার মুখ দেখবেন না
  7.   ফ্রীল্যান্সিং করতে গেলে সহজ তিনটি স্টেপ ফলো করলেই হবেঃ
    • প্রথমে বিভিন্ন কাজ সম্পর্কে জানুন, বুঝুন এবং ঠিক করুন কি কাজ শিখবেন, সেটা শিখে ফেলুন
    • প্রচুর প্র্যাক্টিস করুন এবং পোর্টফোলিও বিল্ড করুন, দক্ষতা অর্জনের জন্য বড় ভাইদের সাথে দুই একটা ফ্রী প্রোজেক্ট করুন, প্রয়োজনে কাউকে ফ্রীতে কয়েকটা প্রোজেক্ট অফার করুন
    • এবার কাজে আবেদন করার সময় আপনার পোর্টফোলিও শো করে বিড করুন, দেখবেন কাজ পেতে কষ্ট পেতে হবেনা………

ব্যাস এই হচ্ছে টোটাল ফ্রীল্যান্সিং এর নাড়ি নক্ষত্র। আশা করি বুঝে গেছেন।

এবার আসি, কি কাজ শিখবেন এবং কিভাবে শিখবেন?

কম্পিউটারে করা যায় এমন যে কোন কিছুরই ফ্রীল্যান্সিং ভিত্তিক কাজ পাওয়া যায়। এই কাজগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে- ওয়েব ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন, এসইও, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং, অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট, ভিডিও এডিটিং ইত্যাদি ইত্যাদি। এর কোন ধরাবাধা নিয়ম নেই, শুনবেন না কারো বারণও। আপনার কাছে যেটা ভাল লাগে সেটাই শিখুন।

তবে যদি আমাকে জিজ্ঞেস করেন প্রথমে কোনটা শিখলে ভাল হবে? তাহলে এক বাক্যে বলে দিব – “ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট”

কারন হচ্ছে- অন্যান্য কাজের তুলনায় অপেক্ষাকৃত সহজ, এর মার্কেট সাইজ দিন দিন বড় হচ্ছে এবং দক্ষ ডেভেলপারের তুলনায় মার্কেটে অনেক বেশি কাজ রয়েছে।

কিভাবে শিখবেন?

আমি জানি আপনি কি ভাবছেন? ভাল একটা ট্রেনিং সেন্টারে গিয়ে কোর্স করে নিবেন?

কিন্তু আপনি যদি আপনাকে জিজ্ঞেস করি?- আপনি তো ওয়েব ডিজাইনে একেবারেই নতুন, তাহলে ট্রেনিং সেন্টার যে আপনাকে ধোকা দিবে না, বা আপনাকে ঠিক মত শেখাবে তার কি গ্যারান্টি আছে?

যেহেতু আপনি নিজে কাজগুলো জানেন না এই জন্য আপনাকে ধোকা দিলেও আপনি বুঝতেই পারবেন না….

এক্ষেত্রে উপায়?

উপায় একটাই, কোর্স করার পূর্বে সেই কাজ সম্পর্কে ভাল ধারণা নিয়ে যান

কিভাবে সম্ভব?

কোন ভাল প্রতিষ্ঠানের টিউটোরিয়াল দেখে কাজ শিখুন প্রথমে। টিউটোরিয়াল দেখলে আপনার লাভ হবে দুইটা

  •  আপনি পুরো কাজ সম্পর্কে A-Z ক্লিয়ার ধারণা পাবেন
  •  এমনও হতে পারে আপনি টিউটোরিয়াল দেখেই কাজ শুরু করে দিতে পারবেন এবং ইন্টারনেট থেকেই কাজ শেখার দক্ষতা চলে আসবে, ফলে আর ট্রেনিং সেন্টারেই যেতে হবে না

তাহলে এমন টিউটোরিয়াল পাবো কোথায়?

আমরা জানি ইংরেজীতে এমন অনেক টিউটোরিয়াল থাকলেও বাংলা ভাষায় এমন টিউটোরিয়াল একেবারে নেই বললেই চলে- তবে আপনি জানেন কি? বাংলাদেশে ইতিমধ্যেই আইটি বাড়ি ওয়েব ডিজাইন এন্ড ডেভেলপমেন্ট এর উপর সম্পূর্ণ বাংলা ভিডিও টিউটোরিয়াল তৈরি করেছে??

এর পূর্ণ দৈর্ঘ্য ৩৫ ঘণ্টা, মানে হচ্ছে ঘরে বসেই আপনি পুরো ৩৫ ঘণ্টার ভিডিও ক্লাস আপনার কম্পিউটারে ওপেন করেই দেখে দেখে শিখতে পারবেন তাও কোন প্রকার কোচিং সেন্টারে না গিয়েই?

ভিডিও দেখে কি শেখা যায় নাকি?

“ভিডিও দেখে শেখা যাবে না এটা আমাদের সম্পূর্ণ ভুল ধারণা”

আপনি জানেন কি?- বাইরের প্রতিটা উন্নত দেশেই ভিডিও টিউটোরিয়াল হচ্ছে শিক্ষার অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম?? বিশ্বাস না হলে নিজেই গুগলে সার্চ করে দেখুন।

কি লাভ হবে এই টিউটোরিয়াল গুলো দেখে?

এক কথায় বললে, আমাদের কয়েকশ সফল স্টুডেন্টদের মতো আপনিও এখান থেকে ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট এর কাজ শেখা এবং তার পাশাপাশি কিভাবে এই সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়বেন তার পূর্ণাঙ্গ এবং ক্লিয়ার-কাট গাইডলাইন পাবেন।

কিভাবে বিশ্বাস করবেন আমাদেরকে?

আমরা জানি, বাংলাদেশের মার্কেটে নিজেদের পরিচিতি টিকিয়ে রাখা বেশ কঠিন। কিন্তু তবুও আমরা প্রায় ৪ বছর ধরে সুনামের সঙ্গে আইটি রিলেটেড সার্ভিস দিয়ে আসছি।

কোয়ালিটি যাচাইয়ের জন্য ডিভিডি এর ভেতর থেকে ১টি বা ২টি নয়, বরং সিরিয়ালি পুরো ২০ টি ভিডিও দেখে কোয়ালিটি যাচাই করে নিনঃ

এই ফুল কোর্সে রয়েছে ২৭৫টি+ HD বাংলা ভিডিও লেসন যার মোট ডিউরেশন ৩৫ ঘণ্টা+ !!

 

একইসাথে ওয়েব ডিজাইন+ডেভেলপমেন্ট+অনলাইনে আয় গাইডলাইন!!

web guru tutorial
ওয়েব গুরু DVD- রকমারি.কম বেস্ট সেলার
  • একই বক্সে ৪ টি ডিভিডি
  • ২৭৫টিরও বেশী বাংলা লেসন
  • ৩৫ ঘণ্টা+ মোট দৈর্ঘ্য

এছাড়াও স্পেশাল বোনাস হিসেবে থাকছে, কিভাবে ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটে অ্যাকাউন্ট করবেন, টাকা তুলবেন তার প্র্যাক্টিক্যাল ভিডিও। বোনাস ভিডিও গুলো ডিভিডি তে দেয়া সিক্রেট গ্রুপে পাওয়া যাবে।

কোর্সটি অর্ডার করুন মাত্র ১৫০০ টাকায়!

*******************************************************************************
⋗⋗ সর্বমোট ভিডিও এর সংখ্যা- ২৭৫টি+
⋗⋗ টোটাল ভিডিও এর ডিউরেশন- ৩৫ ঘণ্টা+
⋗⋗ মোট ডিভিডি এর সংখ্যা- ৪ টি 
⋗⋗ প্রতিটি ভিডিও বাংলা ভাষায়, HD কোয়ালিটির, স্পষ্ট এবং ক্লিয়ার সাউন্ড কোয়ালিটি
⋗⋗ ভিডিও গুলো কম্পিউটারের পাশাপাশি যে কোন স্মার্টফোনেও দেখা যাবে
********************************************************************************

 

“ওয়েব গুরু”- এই ভিডিও কোর্সে কি কি থাকবে?

এরপরেও টেকনিক্যালি কি কি থাকছে তা নিচে থেকে দেখে নিনঃ

  1. HTML 4 + HTML 5
  2. CSS 3
  3. JavaScript, jQuery- (usages only)
  4. PSD to HTML
  5. Responsive Web Design
  6. Basic PHP
  7. WordPress Theme Development – (From Scratch to Final Full Dynamic Theme )
  8. কাজ শেখার পরে কিভাবে-কোথায় কাজ করবেন তার উপর গাইডলাইন
  9. আলাদা আলাদাভাবে শেখার পরে থাকছে পূর্ণাঙ্গ প্রোজেক্ট তৈরির প্র্যাক্টিক্যাল ভিডিও!

একদম শূন্য থেকে প্রতিটা বিষয় হাতে ধরে স্পষ্টভাবে ভেঙ্গে ভেঙ্গে সামনাসামনি লাইভ কোডিং লিখে ফুল ডাইনামিক ওয়েবসাইট তৈরি করেই দেখানো হয়েছে, যাতে করে বুঝতে কোন সমস্যা না হয়, সাথে অনলাইন থেকে আয় কিভাবে করবেন তার গাইডলাইন + সাকসেস রুটিন প্ল্যানও রয়েছে।

 

কোর্সটির মূল্যঃ

এই Web Design and Development ফুল বাংলা ভিডিও কোর্স এর লিস্ট প্রাইস- ২০০০ টাকা

পাচ্ছেন ২৫% এর বিশেষ ডিসকাউন্টঃ

বিশেষভাবে এই পোস্টের রিডারদের জন্য কোর্সটি পুরো  ২৫% ডিসকাউন্টে পাবেন মাত্র- ১৫০০ টাকায়! এই সুযোগ শুধুমাত্র সীমিত সময়ের জন্য – অর্ডার লিঙ্ক এখানে

 এখনই অর্ডার করুন !!

 

অফারটি শেষ হওয়ার পূর্বেই পূর্ণাঙ্গ ভিডিও কোর্সটি সংগ্রহ করুনঃ

ঢাকা সিটিতে সরাসরি হোম ডেলিভারি এবং ঢাকার বাইরে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে পেতে নিচের ফর্মটি পূরণ করে অর্ডার করুন- [ ডিভিডি হাতে পেয়ে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন, কোন অতিরিক্ত চার্জ নেই!!]

Name (*):

Mobile Number(*):

Extra Mobile No.

Proper Address(*):

Order Summary (*):
Web Guru- 1500 Tk

নিচের শর্তে রাজী থাকলে টিক দিন?(*)
- আমি এটির মূল্য এবং কারিকুলাম বিস্তারিত জেনেই অর্ডার করছি এবং ফ্রীল্যান্সিং ক্যারিয়ারের ব্যাপারে আমি সত্যিই সিরিয়াস

ফোনে অর্ডার করতে চাইলে সরাসরি মোবাইল থেকে কল করুন- 09604400400 (10am-8pm)

অনলাইনে আয় সম্পর্কে আরো জানতে চান? মেসেজ করুন আমাদেরকে এখানে

আমাদের সম্পর্কে জানতে চান?? এখানে ক্লিক করুন

এই গ্রুপের অ্যাডমিনকে ফেসবুকে ফলো করুন এখানে

কমেন্টে জানান আপনার মূল্যবান মতামত।

 

[index]
[index]