Home / অনলাইনে আয় / ফ্রীল্যান্সিং এ জিরো থেকে হিরো- কাজ শিখবেন যেভাবে?

ফ্রীল্যান্সিং এ জিরো থেকে হিরো- কাজ শিখবেন যেভাবে?

নতুনদের জন্য অনলাইনে আয় গাইডলাইন এর প্রথম পর্বে আপনাদের ইন্টারনেট থেকে আয় সম্পর্কিত বেশ কিছু ধারনা দিয়েছিলাম এবং কথা ছিল কিভাবে কাজ শিখবেন এটা নিয়ে ২য় পর্ব লেখার। তারই ধারাবাহিকতায় প্রকাশ করা হল আজকের পর্ব।

 

গত পর্ব যারা ফলো করেছেন আশা করছি তারা সবাই নিজেরা বিভিন্ন কাজ সম্পর্কে ধারনা পেয়ে গেছেন। আজকের পর্বে আমরা বিভিন্ন কাজ সম্পর্কে জানব এবং কিভাবে শিখবেন সে বিষয়ে বলার চেস্টা করব।

 

তাহলে চলুন শুরু করা যাক,

 

SEO- Search Engine Optimizaiton নিয়ে বিস্তারিতঃ

SEO কি?

এর মানে হচ্ছে- Search Engine Optimizaiton. কিভাবে একটি ওয়েবসাইটকে গুগলের সার্চ রেজাল্টে নিয়ে আসা যায় সেই টেকনিক। এসইও কি সেটা জানতে এই ভিডিও দেখতে পারেন।

শিখতে কি কি জানা লাগে?

এসইও শেখার জন্য বেসিক কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট চালাতে জানলেই চলে।

ভবিষ্যৎ কেমনঃ

প্রচুর কাজ পাওয়া যায় অনলাইনে। ভাল মানের উপার্জন সম্ভব। এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলছে। চাকরির পাশাপাশি এর মাধ্যমে নিজের জন্য ব্যাবসা করার ও সুযোগ রয়েছে।

শেখা থেকে কাজ করা পর্যন্ত কত দিন সময় লাগতে পারে?

১ মাসে পুরো কনসেপ্ট এবং টুলস গুলোর ব্যাবহার শেখা সম্ভব। এর পরে আরো ২-৩ মাস কঠিন প্র্যাক্টিস করলে মোট ৬ মাসের মধ্যে নিজেকে খুব ভাল একটি পজিশনে নিয়ে যাওয়া যায়।

কিভাবে শিখতে পারি?

ইন্টারনেটে প্রচুর টিউটোরিয়াল রয়েছে শেখার জন্য। সার্চ করে শিখতে পারেন। এছাড়াও কোন প্রতিষ্ঠানে কোর্স করে শেখা যায়, কিন্তু এই মুহূর্তে আমার জানা মতে লিগেল SEO শেখায় এমন কোম্পানী বাংলাদেশে নেই।

আমাদের টিপসঃ

আপনি আইটি বাড়ির SEO বাংলা ভিডিও টিউটোরিয়াল সংগ্রহ করে ভালভাবে এসইও শিখতে পারেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

 

Web Design and Development নিয়ে বিস্তারিতঃ

ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট কি?

ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট হচ্ছে ওয়েবসাইট তৈরির কাজ।  তবে, ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট কিন্তু একই ক্যাটাগরির ভিন্ন দুটি অংশ।। এই দুটির যে কোন একটি শিখেও কাজ করা যায়। এই সম্পর্কে গাইডলাইন পাবেন এই লিঙ্কে।

শিখতে কি কি জানা লাগে?

একেবারে জিরো থেকে শুরু করতে তেমন কিছুই জানা লাগে না। তবে যখন আপনি কাজ শেখা শুরু করবেন তখন পর্যায়ক্রমিক ভাবে HTML, CSS, JavaScript, PHP, WordPress ইত্যাদি শেখা লাগবে।

ভবিষ্যৎ কেমনঃ

অসাধারণ! দিন দিন এই সেক্টরে কাজের চাহিদা তুমুল হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং সাথে সাথে কাজের ভেল্যুও। নতুনদের জন্য এই সেক্টর ব্যাপক সম্ভাবনাময় হতে পারে। রয়েছে চাকরীর পাশাপাশি ব্যাবসারও সুযোগ!

শেখা থেকে কাজ করা পর্যন্ত কত দিন সময় লাগতে পারে?

এই কাজ গুলো শিখতে ২-৩ মাস সময় লাগতে পারে। আর শেখার প্রচুর প্র্যাক্টিস করতে হবে। ৪-৫ মাসের মধ্যেই ভাল অবস্থানে যাওয়া যায়।

কিভাবে শিখতে পারি?

ইন্টারনেটে প্রচুর টিউটোরিয়াল রয়েছে শেখার জন্য। সার্চ করে শিখতে পারেন। এছাড়াও কোন প্রতিষ্ঠানে কোর্স করে শেখা যায়। ঢাকায় অনেক প্রতিষ্ঠান আছে শেখানোর জন্য। তবে ভর্তি হওয়ার আগে যাচাই করে নেয়া উচিত।

আমাদের টিপসঃ

ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট এর উপর আমাদের আইটি বাড়ি প্রকাশিত বেশ চমৎকার বাংলা ভিডিও টিউটোরিয়াল রয়েছে। যেগুলো দেখে যে কেউ পুরো কোর্সটি অত্যন্ত সুন্দরভাবে কমপ্লিট করতে পারেন। এই কোর্স সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানুন এই লিঙ্কে।

 

গ্রাফিক্স ডিজাইন নিয়ে বিস্তারিতঃ

এটা কি?

গ্রাফিক্স ডিজাইন হচ্ছে অনলাইনে বিভিন্ন লোগো ডিজাইন, ভিডিও এডিটং, অ্যানিমেশন ইত্যাদি এর কাজ।

শিখতে কি কি জানা লাগে?

কাজ শেখা শুরু করতে কিছু জানতে হবে না। আপনি কোনটা শিখবেন সেটার উপর নির্ভর করে Adobe Photoshop, Illustrator, Auto cad ইত্যাদি শিখতে হতে পারে।

ভবিষ্যৎ কেমনঃ

এটার ব্যাপক ভবিষ্যৎ রয়েছে। দিন দিন এই সেক্টর বিকশিত হচ্ছে। বাংলাদেশেও আস্তে আস্তে জব সুযোগ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

শেখা থেকে কাজ করা পর্যন্ত কত দিন সময় লাগতে পারে?

এই সেক্টরে অনেক বিষয় রয়েছে। আপনি যে কোন নির্দিষ্ট বিষয় ১-২ মাসে শিখে আরো ১ মাস প্র্যাক্টিস করে, মোট ৬ মাসের মধ্যে নিজেকে ভাল অবস্থানে নিয়ে যাওয়া সম্ভব। তবে প্রচুর পরিমাণ প্র্যাক্টিস করতে হবে।

আমাদের টিপসঃ

বাংলাদেশে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখায় এমন অনেক ভাল প্রতিষ্ঠান আচ্ছে। ঢাকায় একটু খোজ খবর নিলেই পেয়ে যাবেন। এছাড়াও ইন্টারনেটে ফ্রী অনেক কোর্স আছে, সেখানে করে নিতে পারেন।

 

অ্যাপ্লিকেশন/সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট নিয়ে বিস্তারিতঃ

এটা কি?

অ্যাপ্লিকেশন ভেলেপমেন্ট হচ্ছে বিভিন্ন ডিভাইসের যেমন- মোবাইল, কম্পিউটার ইত্যাদির জন্য অ্যাপ বা সফটওয়্যার তৈরি করা।

শিখতে কি কি জানা লাগে?

কাজ শেখার পূর্বে প্রোগ্রামিং সম্পর্কে ধারনা নিয়ে নিতে হবে। এছাড়া বাকীটা যখন শেখা শুরু করবেন তখনই জেনে যাবেন। এই সেক্টরে সাধারণত যে কোন এক বা একাধিক Programming Language শিখে নিতে হয়।

ভবিষ্যৎ কেমনঃ

অনেক সুদূরপ্রসারী ভবিষ্যৎ রয়েছে। যদিও কাজ গুলো শেখা অনেক কষ্টদায়ক বটে, কিন্তু এখানে কাজের ডিমান্ড অনেক বেশী।

শেখা থেকে কাজ করা পর্যন্ত কত দিন সময় লাগতে পারে?

মিনিমাম ২ বছর সময় হাতে নিয়ে আসতে হবে। প্রচুর শ্রম এবং ডেডিকেশন দিলেই এখানে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গড়া সম্ভব।

কিভাবে শিখতে পারি?

অনলাইনে সার্চ করে অনেক কিছুই শিখতে পারবেন। কিন্তু একটি প্রাতিষ্ঠানিক কোর্স প্রয়োজন হতে পারে। বাংলাদেশে আস্তে আস্তে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে যারা বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শিখিয়ে থাকে।

আমাদের টিপসঃ

প্রথমেই Computer Language C  শিখে নিন। এর পরে সিদ্ধান্ত নিন কোনটা শিখবেন। নেট ঘেটে ঘেটে বেসিক লেভেল অর্জন করুন। এর পরে প্রোফেশনাল লেভেলে কাজ করতে কোন প্রতিষ্ঠান থেকে কোর্স করে নিন।

 

Virtual Assistant নিয়ে বিস্তারিতঃ

এমন অনেক নতুন উদোক্তা রয়েছে যাদের হেল্প প্রয়োজন কিন্তু কোন অফিস নেই। সেক্ষেত্রে হেল্প এর জন্য তারা ভার্চুয়াল অ্যাসিসট্যান্ট খোজে যারা তাদেরকে অনলাইনের মাধ্যমে নিজের বাসায় বসেই হেল্প করবে। অনলাইনে এমন কাজের সংখ্যা প্রচুর। দিন দিন এর চাহিদা বাড়ছে। যোগ্যতার উপর নির্ভর করে কাজের রেট ৩ ডলার প্রতি ঘণ্টা থেকে ২০ ডলার ঘণ্টাও হতে পারে। এই কাজ করতে হলে কম্পিউটার অফিস কোর্স জানা থাকতে হবে, সাথে ডাটা এন্ট্রির অন্যান্য বিষয়ও জানতে হবে। এর সাথে অবশ্যই ইন্টারনেট ঘেটে তথ্য বের করার মত যথেষ্ট দক্ষতা থাকতে হবে।

 

আপনার জন্য কোনটা পারফেক্ট হবে?

অনেক গুলো ক্যাটাগরির কাজ নিয়ে বলেছি। সামান্য কিছু ধারনা দিয়েছি মাত্র। সিদ্ধান্ত কিন্তু আপনাকেই নিতে হবে। আপনার হাতে থাকা সময় ও অন্যান্য পারিপার্শ্বিক অবস্থা বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিন কোনটা শিখবেন।

 

আপনার জন্য আমাদের ছোট্ট সাজেশনঃ

আমরা জানি, যেহেতু আপনি নতুন এবং কাজ শিখতে চাচ্ছেন তাই আপনি জিজ্ঞেস করবেনই আমাদের একটা সাজেশন এর জন্য।

আর তাই আপনার জন্য আমাদের সাজেশন হচ্ছে- আপনি ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট এর কাজ গুলো শিখুন। এর কারন হচ্ছে, বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে যদি কাজের ভেল্যু এবং প্রতিযোগিতা বিবেচনা করেন তাহলে ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্ট কেই আমরা নম্বর ওয়ান ধরতে হবে।

আর তাছাড়া, অনলাইনের যে সেক্টরেই কাজ করুন না কেন, সব কিছুর সাথে কোন না কোন ভাবে SEO এর কাজ জড়িত আছেই। তাই, আপনার শেখা যে কোন কাজের পাশাপাশি যদি এসইও এর কাজ গুলো জানা থাকে তাহলে আপনি থাকবেন সবার থেকে এগিয়ে।

 

তার মানে ফাইনাল সাজেশন দাড়াল- ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট, সাথে এক্সট্রা হিসেবে এসইও 

 

আর আপনি যদি মনে করেন, এগুলো আমাদের কাছ থেকেই শিখবেন, তাহলে তো কথাই নেই! আজই বেস্ট কোয়ালিটির বাংলা ভিডিও টিউটোরিয়াল সংগ্রহ করে ঘরে বসেই শিখুন বিষয় গুলো।


কাজ শেখার জন্য আমাদের প্রকাশিত কিছু সেরা বাংলা ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখতে এখানে ক্লিক করুন। 


যে কোন ভিডিও কেনার পূর্বে কোয়ালিটি যাচাই করে নিন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল থেকে ২০ টি করে ডেমো ভিডিও দেখে, এখানে ক্লিক করুন।

 

The following two tabs change content below.

আব্দুল কাদের (এডমিন)

নিজের সম্পর্কে বলার তেমন কিছুই নেই, খুব সাধারন একটি ছেলে। লিখাপড়া করছি কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টে। ছোটবেলা থেকেই টেকনোলোজির প্রতি ভীষণ আগ্রহ ছিল। তাই শেষপর্যন্ত টেককেই বেছে নিয়েছি পথ চলার সঙ্গী হিসেবে। এখন কাজ করছি Ted Cow নামের একটি কোম্পানিতে ওয়েব ডেভেলপার এবং এসইও প্রোজেক্ট ম্যানেজার হিসেবে। ভালবাসি কম্পিউটার সংক্রান্ত নতুন কিছু শিখতে। আমার মতে, আমার শেখা তখনই স্বার্থক হবে যখন সেটা আমি আরেকজনের মাঝে ছড়িয়ে দিতে পারব। আর এই জন্যই প্রতিষ্ঠা করেছি আইটি বাড়ি। ইনশাআল্লাহ আমাদের স্বপ্নের লাল সবুজের ডিজিটাল বাংলাদেশ হবেই হবে।

Check Also

চলুন ফ্রীল্যান্সিং করি- “অন্ধকারে না থেকে সঠিক ধারনা নেই, নিজেই নিজের ক্যারিয়ার গড়ি”- পর্ব-০৫ (কি কাজ শিখবেন, কিভাবে শিখবেন?- ওয়েব ডেভেলপমেন্ট যেভাবে শিখবেন)

গত পর্বে কথা বলেছিলাম ওয়েব ডিজাইন এর কিভাবে শিখবেন সেটা নিয়ে। আজকের বিষয় হল কিভাবে …

Leave a Reply