একটি ওয়েবসাইট হতে পারে আপনার সারা জীবনের স্থায়ী উপার্জন। দেখুন কিভাবে।

আমরা সব সময়ই বলি, অনলাইনে আয়ের দুটি রাস্তা। এক, চাকরি করা এবং দুই, ব্যাবসা করা। আমাদের বাস্তব জীবনের মত অনলাইনেও আমরা চাকরি এবং ব্যবসা দুটোই করতে পারি। আর আজকে আপনাদের সাথে কথা বলব অনলাইনের একটি স্থায়ী ইনভেস্ট সম্পর্কে যেটা আপনি একবার করলে সারাজীবন বসে বসেই খেতে পারবেন। হ্যা, এমন একটি ইনভেস্ট হচ্ছে একটি ওয়েবসাইট। একটি ওয়েবসাইট হতে পারে আপনার সারা জীবনের স্থায়ী উপার্জনের ক্ষেত্রে। তাহলে চলুন দেখি কিভাবে?

Earn With a Website- IT Bari
ওয়েবসাইট থেকে আয় করুন স্থায়ীভাবে

 শুরুতেই একটু জানি, মানুষ কেন ওয়েবসাইট তৈরি করে?

একটি ওয়েবসাইট হচ্ছে আপনার যে কোন প্রতিষ্ঠানের অনলাইন পরিচয়। যে কোন কোম্পানি, স্কুল, কলেজ ইত্যাদি সকল প্রতিষ্ঠান তাদের নামে ওয়েবসাইট করে থাকে যাতে করে ইন্টারনেটে তাদের সম্পর্কে জানা যায় এবং তাদের বিভিন্ন সেবা বা সার্ভিস সম্পর্কে মানুষ যেন সহজেই জানতে পারে। এই জাতীয় ওয়েবসাইট গুলো হচ্ছে মূলত প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট।

 

কিন্তু প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইটের বাইরেও কিন্তু রয়েছে আরও প্রচুর ওয়েবসাইট যেগুলো হচ্ছে ব্যক্তিগত বা ব্যবসায়িক। এই ধরণের ওয়েবসাইট গুলোতে সাধারণত বিভিন্ন টিপস, ট্রিক, আইডিয়া, বিনোদন, খবর ইত্যাদি বিষয় দেয়া হয়ে থাকে। এই গুলোকে আপনি অ-প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট ও বলতে পারেন। এই ধরনের ওয়েবসাইট গুলো করা হয় সাধারণত সখের বসে অথবা, লং টাইম ব্যাবসা করার জন্য।

 

যেমন ধরুন, বাংলা ভাষায় বর্তমানে সবচেয়ে বড় টেকনোলোজি সাইট কোনটি? অবশ্যই, টেকটিউনস। এটা কিন্তু কোন প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট নয়, এটা হচ্ছে টেকনোলজি সংক্রান্ত ওয়েবসাইট বা ব্লগ যেখানে বিভিন্ন মানুষ বা লেখকেরা টেকনোলজি বিষয়ে তাদের বিভিন্ন জ্ঞান শেয়ার করে। এতে করে প্রতিদিন হাজার হাজার লোক টেকটিউনে প্রবেশ করে বিভিন্ন বিষয় শেখার জন্য। তাহলে টেকটিউন হচ্ছে একটি নন-প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট।

 

ঠিক একই ভাবে আপনিও যদি এই ধরনের একটি ওয়েবসাইট প্রতিষ্ঠা করে সঠিক জায়গায় নিয়ে আসতে পারেন তাহলে আপানার বাকী জীবন এই ওয়েবসাইট দিয়েই চালিয়ে দিতে পারবেন যদি আপনি বুদ্ধিমান হন।

 

Website Image
তৈরি করুন আপনার আর্নিং সাইট

তাহলে কিভাবে একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ থেকে আয় করা যায়?

শুরুতেই বলে নেই, নতুনদের মাঝে ওয়েবসাইট বা ব্লগ নিয়ে বেশ ভাল কনফিউশন দেখা যায়। আসলে ব্লগ হচ্ছে এক ধরনের ওয়েবসাইট যেখানে নিয়মিত বিভিন্ন বিষয়ে লিখালিখি করা হয়। সেটা হতে পারে যে কোন বিষয়। আর ওয়েবসাইট হচ্ছে এক ধরনের সাইট যেখানে সাধারণত তেমন কোন চেঞ্জ হয় না, বা যেখানে লিখালিখির ব্যাপার থাকে না। আপনি ওয়েবসাইট বা ব্লগ যেটাই করুন না কেন সেখান থেকে অবশ্যই আয় সম্ভব। চলুন সামনের দিকে এগুনো যাক।

 

ওয়েবসাইট / ব্লগ থেকে আয় করার অনেক পদ্ধতি রয়েছে। নিচে সংক্ষেপে কয়েকটি পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করা হলঃ

১. বিজ্ঞাপন থেকে আয়ঃ আপনার ওয়েবসাইটে যদি বেশ ভাল ট্রাফিক (ট্রাফিক হচ্ছে ভিজিটর বা মানুষ যারা আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করবে) থাকে তাহলে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে অন্যান্য কোম্পানীর বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করিয়ে সেখান থেকে আয় করতে পারেন।

 

যেমন- আমরা প্রায় সময়ই বিভিন্ন ওয়েবসাইটে ঢুকলে ওয়েবসাইটের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন পন্যের বিজ্ঞাপন দেখে থাকি। এই জাতীয় বিজ্ঞাপন গুলো ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করানোর মাধ্যমে আপনি আয় করতে পারেন। আপনার ওয়েবসাইটে যে কোম্পানির বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করাবেন সেই কোম্পানী আপনাকে একটি নির্দিষ্ট মূল্য পে করবে তাদের বিজ্ঞাপন আপনার ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করানোর জন্য।

 

তাহলে এবার বলতে পারেন, এই সকল কোম্পানির বিজ্ঞাপন পাব কোথায়? এই ধরনের বিজ্ঞাপন পাওয়ার জন্য অনলাইনে অনেক জনপ্রিয় সাইট আছে (যেমন- গুগল অ্যাডসেন্স)। এই সকল সাইট থেকে কিভাবে অ্যাড নিবেন এবং কিভাবে আয় হবে সেটা নিয়ে ইনশাআল্লাহ পরবর্তীতে বিস্তারিত আলচনা করা হবে। এখন শুধুওয়েবসাইট থেকে আয় করার কিছু প্রসেস সম্পর্কে জানি ।

 

২. নিজের কোন পন্য বিক্রি করে আয়ঃ আপনার ওয়েবসাইট যদি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে এবং প্রতিদিন বেশ ভাল ট্রাফিক থাকে তাহলে আপনি আপনার নিজের তৈরি করা কোন পন্যের বিজ্ঞাপন সেখানে দিতে পারেন এবং সেখান থেকে আপনি আপনার পন্যের জন্য বেশ ভাল সেল পেতে পারেন। তবে এটা শুধুমাত্র, যদি আপনার তৈরি করা কোন প্রোডাক্ট থাকে তাহলেই সম্ভব। আপনার যদি বিক্রি করার মত কোন পণ্য না থাকে তাহলে এই ক্ষেত্রে সম্ভব নয়।

 

৩. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয়ঃ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হচ্ছে অনেকটা সেলসম্যান এর মত। এখানে, আপনাকে বিভিন্ন কোম্পানির পণ্য বিক্রি করে দিতে হবে এবং প্রতিবার যখন আপনি অন্য কোম্পানির কোন পণ্য আপনার নিজের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারবেন তখন আপনাকে সেই বিক্রয়কৃত অর্থ থেকে কমিশন দেয়া হবে। আপনি চাইলে আপনার ওয়েবসাইটে এই জাতীয় মার্কেটিং করতে পারেন। নিজের সাইট বা ব্লগ করে আমাদের দেশে অনেকেই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করছেন। কাজেই আপনিও এই জাতীয় কাজ করে আয় করতে পারেন।

 

৪. ইমেইল কালেকশনঃ আমরা সবাই মোটামুটি কম বেশি নেট থেকে বই, গান, ভিডিও ইত্যাদি ডাউনলোড করে থাকি। তবে, মাঝে মাঝে বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে বই বা মুভি ডাউনলোড করতে গেলে আমরা দেখে থাকি আমাদের ইমেইল অ্যাড্রেস দিতে বলে। আমরা ইমেইল অ্যাড্রেস দিলে তারপর আমাদেরকে সেটা ডাউনলোড করতে দেয়।  কিন্তু কেন এমনটা হয়, কেন ইমেইল এর ঠিকানা চায় ওই ডাউনলোড সাইট গুলো? এটা হচ্ছে এই জন্য যে, আপনি গান ডাউনলোড করার সময় আপনার যে ইমেইল এড্রেসটি দিবেন সেটি ওই ওয়েবসাইট কর্তৃপক্ষ সংরক্ষন করে রাখবে। এই ভাবে যতজন ওই গানটি ডাউনলোড করতে তত জনের ইমেইল অ্যাড্রেস তার কাছে থাকবে।

 

এই ভাবে ধরলাম, ১০০০ জনের ইমেইল ওই ওয়েবসাইটের মালিকের কাছে জমা হল। এবার তিনি ওই ১০০০ ইমেইল অ্যাড্রেস বিভিন্ন ইমেইল মার্কেটারদের কাছে বিক্রি করতে পারবেন। কারন, অধিকাংশ ইমেইল মার্কেটিং এর জন্য অ্যাক্টিভ ইমেইল অ্যাড্রেস এর তালিকা প্রয়োজন পরে। এই জন্য বিভিন্ন ইমেইল মার্কেটাররা ইমেইল অ্যাড্রেস কিনে নেয় নিজেদের মার্কেটিং করার জন্য। আর আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট থাকে এবং আপনি এইভাবে ইমেইল অ্যাড্রেস সংগ্রহ করতে পারেন, তাহলে আপনিও এই ইমেইল অ্যাড্রেস গুলো বিক্রি করে আয় করতে পারেন।

 

 

কিন্তু সব কথার বড় কথা হল, ওয়েবসাইটে যদি ট্রাফিক বা ভিজিটর না থাকে তাহলে কোন লাভই নেই। কারন, যে সাইটের ভিজিটর নেই সেই সাইটে কেউই টাকা খরচ করে বিজ্ঞাপন দিবে না। আর তাই যে কোন ওয়েবসাইট আপনার আয়ের উৎস তখনই হবে যখন আপনার সাইটটি জনপ্রিয় হয়ে উঠবে এবং প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণ লোক আপনার সাইট ভিজিট করবে। কিন্তু এই পর্যায়ে একটি ওয়েবসাইটকে নিয়ে আসার জন্য প্রয়োজন প্রচুর পরিশ্রম আর ধৈর্য্য।

Blog or Website?
সিদ্ধান্ত নিন কোনটা করবেন?

তাহলে কি সিদ্ধান্ত নিলেন? কোনটা করবেন? ওয়েবসাইট নাকি ব্লগ?

অনেকেই কনফিউশনে থাকেন যে ওয়েবসাইট করবেন নাকি ব্লগ করবেন। কিন্তু এমনটার কারন হচ্ছে এই দুইটার মধ্যে পার্থক্য না বোঝা। আসলে ব্লগ আর ওয়েবসাইটের মধ্যে খুব বেশি পার্থক্য নেই। ব্লগ হচ্ছে এক ধরনের ওয়েবসাইট যেখানে বিভিন্ন লেখক তার লিখা পাবলিশ করতে পারে। আর সকল ব্লগকেই এক একটি ওয়েবসাইট বলা চলে। তাই যেহেতু পার্সোনাল বিজনেস বা বিজ্ঞাপন থেকে আয় করা হচ্ছে আমাদের ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য তাই আমার মতে ব্লগ সাইট বানানোই উত্তম কারন, এখানে আপনি নিয়মিত লিখতে পারবেন এবং নতুন নতুন লিখা পড়ার জন্য নিয়মিত বিভিন্ন ভিজিটর পেতে থাকবেন।

 

আর তাছাড়া, ব্লগিং হচ্ছে বর্তমান সময়ের প্রচুর জনপ্রিয় প্রেক্ষাপট। এর মাধ্যমে বিভিন্ন লেখক তার লিখা গোটা বিশ্বের কাছে ছড়িয়ে দিতে পারে। তবে, এর অপব্যবহার কারই কাম্য নয়।

 

কি বিষয়ে ওয়েবসাইট/ব্লগ তৈরি করবেন?

আসলে প্রথম অবস্থায় সবচাইতে বড় যে সমস্যাটি হয় সেটি হচ্ছে, কোন বিষয়ে ব্লগ করবেন সেটাই খুজে না পাওয়া? এটার মূল কারন হচ্ছে তাড়াহুড়া করা। আমরা যখন কোন উৎসাহমূলক লিখা পড়ি বা কারন সফলতার গল্প শুনি তখনই মনে মনে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি আমিও তেমন হব, এর জন্য যত পরিশ্রম করতে হয় করব। হ্যা, এমন ভাবাই শ্রেয়। কিন্তু আমাদের প্রধান সমস্যা হচ্ছে আমরা ধৈর্য্য ধরার চেস্টা করতে পারি না, আমাদের সব কিছু ইন্সট্যান্ট বা তৎক্ষণাৎ দরকার। আর এই জন্য শেষ পর্যন্ত আমাদের তেমন কিছুই হয় না। আর তাই যেহেতু আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট একদিন বা দুইদিনের জন্য নয়, যেহেতু এটা সারা জীবনের জন্য তাই হুট করেই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলবেন না যে আপনি কোন বিষয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন। ভাবুন, দেখুন, শুনুন, বুঝুন তারপর সিদ্ধান্ত নিন আপনি কি করবেন এবং কেন করবেন এবং কিভাবে করবেন?

 

ব্লগ বা ওয়েবসাইটের বিষয় নির্বাচন করার ক্ষেত্রে কিছু টিপসঃ

ব্লগ বা সাইটের বিষয় নির্বাচন করার ক্ষেত্রে নিচের টিপস গুলো আপনাকে হেল্প করতে পারে-

  1. আপনি ভাল জানেন এবং আপনার ইন্টারেস্ট আছে এমন যে কোন বিষয়েই আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। আপনি যেটাই জানুন না কেন সেটা নিয়েই শুরু করে দিতে পারেন লিখালিখি। শেয়ার করুন আপনার নিজের জ্ঞান। সেটা কোন বিষয় সেটা কোন ব্যাপার না, কোয়ালিটি থাকলে সব বিষয়েই সাইট করা যায়। এমন অনেকেই আছেন যারা তাদের সখের অনেক কিছু নিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করেও সেখান থেকে প্রতি মাসে কয়েক হাজার ডলার আয় করছেন।
  2. আপনি আপনার পড়াশুনার বিষয়টিকে ওয়েবসাইট বানানোর কাজে লাগাতে পারেন। যেমন ধরুন, আপনি একজন বিজনেস ম্যানেজম্যান্ট এর ছাত্র। তাহলে আপনি চাইলে বিজনেস সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে নিয়মিত লেখালেখির অভ্যাস করতে পারেন। আপনার সাইটে প্রতিদিন, সম্ভব না হলে প্রতি সপ্তাহে অন্তত একটি করে পোস্ট লিখুন। চেস্টা করুন যেটা সেটা ইন্টারেস্টিং হয় এবং মানুষ বা ভিজিটর যাতে সেটা পড়ে নতুন কিছু জানতে পারে। এই ভাবে লিখতে থাকলে দেখবেন একসময় আপনি পার্মানেন্ট ভিজিটর পেয়ে যাবে যারা আপনার সাইট নিয়মিত ভিজিট করবে।
  3. তবে এই ক্ষেত্রে, কখনো হেজিটেশনে ভুগবেন না যে কি লিখব, কেমন হবে, কেউ পছন্দ করবে কিনা? আপনি সেটাই লিখবেন যেটা আপনি জানেন। লিখতে লিখতেই এক সময় আপনি আপনার ব্লগকে জনপ্রিয় করে তুলতে পারবেন। আপনি যত লিখবেন আপনার লিখা তত আকর্ষণীয় হয়ে উঠতে থাকবে। একবার ব্লগ জনপ্রিয় হয়ে উঠলে সেখানে আপনি অন্যান্য লেখকদের ও আমন্ত্রণ করতে পারেন আপনার ব্লগ লিখার জন্য। এবং অন্যান্য ব্লগাররাও যদি আপনার ব্লগে লিখা শুরু করে দেয় তাহলেই তো কেল্লাফতে ! এরপর আপানাকে আর আশা করি পেছনে ফিরতে হবে না।

 

এই ভাবে যদি একটি সাইট কে দাড় করিয়ে ফেলতে পারেন তাহলে এখানে বিজ্ঞাপন সহ উপরোল্লেখিত উপায় সমূহ অবলম্বন করে আপনি আপনার ওয়েবসাইটকে পার্মানেন্ট আয়ের উৎস হিসেবে গড়ে তুলতে পারবেন।

 

সফল হতে চাই সঠিকভাবে পরিশ্রম

কতদিন লাগতে পারে একটি ওয়েবসাইট সম্পূর্ণরূপে রান/সফল করতে?

earn from internet

আসলে এর কোন সঠিক উত্তর নেই। তবে  এটা বলা যায় আপনি যদি বেশ কঠিন পরিশ্রম করতে পারেন তাহলে ৬-৭ মাসের মধ্যে আপনার সাইটটিকে একটি অবস্থানে নিয়ে আসা সম্ভব হবে। তবে এর থেকে কম সময়েও অনেকে নিজের সাইটকে ভাল পর্যায়ে নিয়ে আসতে পেরেছেন। আবার অনেকে আছে ২ বছরের মধ্যেও সাইটের কোন উন্নয়ন করতে পারে না। তাই সম্পূর্ণ ব্যাপারটা আপনার উপর নির্ভরশীল। যদি সঠিক উপায় পরিশ্রম করতে পারেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটই হতে পারে আপনার সোনার ডিম পারা হাঁস।

জেনে নিন ওয়েবসাইট তৈরির প্রাথমিক বিষয়গুলো

 

তাহলে কি সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন?

আশা করি একটি ওয়েবসাইট থাকার গুরুত্ব কিছুটা হলেও বুঝতে পেরেছেন। যাই হোক এবার সিদ্ধান্ত আপনার হাতে। আজ এই পর্যন্তই। আগামী পর্বে ইনশাআল্লাহ একটি ওয়েবসাইট করতে কি কি লাগবে এবং কিভাবে করলে আপনার ওয়েবসাইটটি দ্রুত সফলতার দিকে এগুবে সেই বিষয়গুলো নিয়ে আলচনা করব। পরের পর্বটি পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েবসাইটে! ভাল থাকবেন সবাই। আল্লাহ হাফিজ।

আইটি বাড়ির বিভিন্ন বাংলা টিউটোরিয়াল সম্পর্কে সম্পর্কে জানতে এখানে ক্লিক করুন।

বাংলা ভাষায় ওয়েবডিজাইন শিখতে আমাদের ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখুন এখানে ক্লিক করে।

 

>> লিখাটি ভাল লেগে থাকলে ফেসবুকে আপনার বন্ধুর সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। নিচের শেয়ার অপশন থেকে সরাসরি আপনার ফেসবুক ওয়ালে শেয়ার করুন পোস্টটি। আপনাদের উৎসাহ-ই আমাদের অনুপ্রেরনা <<

ফেসবুকে শেয়ার করুন-

Share on facebook
Share on linkedin
Share on pinterest
Share on reddit

66 Responses

  1. খুব গুরুত্বপুর্ন একটা পোস্ট শেয়ার করেছেন ভাই, অনেক ধন্যবাদ। আমিও মনে করি নিজের ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করাটা অনেক নিরাপদ আর স্থায়ি।
    একটা ব্লগসাইট রান করাতে ডোমেইন আর হোস্টিং খরচ দিয়ে প্রতি বছর মোট কত টাকা খরচ হতে পারে ভাই?

      1. kibabe ami seo kajta shikte parbo.konta korle bhalo hobe.website or blog or freelanaicng.ami akta chokato job kori.okane prochur somoy dite hoy.kibae kajta korte parbo.

  2. Apnar post gulu valo large. Ei jonno dhonyobad. Amar Facebook-er Fanbox-a kisu dollar jomese, kintu dollar transfer korte parsina a/c verified er jonno. Apnar help chai.

  3. today i see your face book. i am trying to income from online but first time it is quite impossible for me.its a good idea then today i am trying from your tutorial.

    thanks

    subrata.

  4. আব্দুল কাদের ভাই আপনার পোষ্টটি পড়ে খুব ভাল লাগল কিন্তু আমি একথা জানতে চায় যে আমি যে blog site খুলব তার domain এবং hosting কোন জায়গা হতে কিনব নাকি আপনি দিতে পারবেন । আশা করি কথাটির reply দিবেন।

  5. assalamualaikum খুব গুরুত্বপুর্ন একটা পোস্ট শেয়ার করেছেন ভাই, অনেক ধন্যবাদ।একটি ব্লগ সাইটের জন্য ডোমেইন ও হোস্টিং এ কত খরচ পরবে?এবং আপনি করেনন কিনা বা কোন কম্পানি থেকে করলে ভাল হবে জানালে উপকার হত!

  6. উত্তর কিন্তু এখনো পাইনি আঃ কাদের ভই।ভাই বললে ভুল হবে ওস্তাদ হ্যা আপনিই আমার ওস্তাদ।

    1. কোন উত্তর ভাই? আমাকে ইমেইল করুন।

  7. আমি আপনার এই লেখাটি পড়িয়া আপনাদের তিনটি সিডি কিনেছি। অনলাইনে আয়ের জন্য সাধনা শুরু করেছি। আশাকরি আপনারা আমাকে সহায়তা করবেন।

  8. আগামী পর্বে
    ইনশাআল্লাহ একটি ওয়েবসাইট করতে
    কি কি লাগবে এবং কিভাবে করলে
    আপনার ওয়েবসাইটটি দ্রুত সফলতার
    দিকে এগুবে সেই বিষয়গুলো নিয়ে
    আলচনা করব। পরের পর্বটি পেতে চোখ
    রাখুন আমাদের ওয়েবসাইটে! Waiting.

  9. thanx bro.shondor post korar jonnu.bro apnar kase akta kotha janar chilo.website a valo traffic pate kon platform valo hobe.wordpress naki blogspot?

    1. ট্রাফিক আসলে এই গুলার উপর নির্ভর করে না। আপনার সাইটে কি আছে, দেখতে কেমন, মার্কেটিং কেমন করছেন এই গুলাই মেইন

  10. আমি আপনার একটি প্যকেজ নিয়েছি। আমাকে সব ধরনের সাহায্য করবেন। আমি সব সময় আশাবাদী।
    ধন্যবাদ আপনাকে।

  11. It is true.But without a proper website,man can’t earn from internet.work hard and
    soul its come to be true.kader vi’s guide is really helpful for a man who earn from online.

  12. আমি নতুন ওয়েভ সাইট তৈরি করব।
    domain & hosting এর দাম কত? কত টাকায় কত জিবি, মেয়াদ কত দিন? জানাবেন দয়া করে।
    যাযাকাল্লাহ খাইর।

  13. আমি ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আয় করতে চাই।কিনতু আমি কিছু পারিনা বা জানিনা। তো আমি কি করে আয় করতে পারি? আমাকে কি কিছু শিখতে হবে? তবে কি জরুরী শেখা? জানাবেন দয়া করে।।।।।।

    1. প্রথমে ঠিক করুন কি বিষয়ে ওয়েবসাইট করবেন, আপনি কোনটা ভাল জানেন তারপর সেই অনুযায়ী কাজ করুন,

  14. Vai thanks. আমি একটা web site বানিয়েছি।আমার web site djmazza25.tk.ami আপনাদের দেওয়া ভিডিও দেখেই এই web site টি বানাতে পেরেছি নতুবা অসম্ভব ছিল।আপনাকে many many many thanks.but এখন আপনার help আমার খুব প্রয়োজন।

  15. ভাই আপনার লেখাগুলো খুবইভালো করে সাজিয়ে লেখেন আপনাকে ধন্যবাদ । যাই হোক ভাই আপনার কোন সিডিটা কিনলে আমি একটা ব্লগ সাইট সম্পর্কে শিখতে ও জানতে পারব।

  16. ভাইয়া আপনার পোষ্ট আমার খুবই ভাল লাগে। আমি সময় পেলেই আই টি বাড়ির পোষ্ট গুলো পড়ি। আরো সুন্দর সুন্দর পোষ্ট করবেন এই কামনায় রইল।

  17. vaiya ami apnar IT Bari website ta somporke janar age onno ekta company er dics kinasilam.sothik vabe kesu na bujhte parar karone online kaj korbona vabsilam but ekta tutorial download korte gia apnar website ti dekhi and post gula dekhe valo lage tai seo o practical upwork cd kinasilam.Ami apnar seo cd ta theke 1 month a ja sikhlam ta goto 2 year a o ta sikhte parinai.so thank you so much vaiya….allah apnake aro onek valo kisu korar sujog dik…

    1. আপনার মন্তব্য শুনে ভাল লাগল, আল্লাহ আমাদের সবার মঙ্গল করুক, আমীন

    2. Ami prothom deke ghabre giachilam.actually, freelancing, elance,odesk agula ki.pore akdin dhuklam.matha nosto hoye jaber upocrome.pore it Bari amake ekta sundor poth khuje dilo.Tai it bary er kottripokho ke janai suvecha.unnotir pothe agea jak it bari…….

  18. অনেক উপকারি পোস্ট।আমি এই পোস্ট টি পরেই bdwrite.com সাইট টি তৈরি করলাম।

  19. আপনার পোস্ট গুলো খুবই উপকারি । ধন্যবাদ আপনাকে । আমাদের স্কুলের https://www.tnhs.edu.bd সাইটটিতে আপনার SEO video tutorials এর যথেষ্ট অবদান রয়েছে । এখন Google এ খুজলে সহজে পাওয়া যায় ।

  20. Premium website er jonno kibabe domain & hosting nivo….. and every year nite hove????? please detailse volum@abdul kader vai

  21. একটি বড় ওয়েব সাইট তৈরীর টিউটোরিয়াল চাই। যেখানে অনেক বেশী এলিমেন্ট থাকবে, অনেক বেশী আইটেম থাকবে, অনেক বেশী অফশন থাকবে। এটি আপনাদের টিউটোরিয়াল এর সাথে এড করলে স্টুডেন্টরা অনেক বেশী উপকৃত হবে। আপনাদের টিউটোরিয়াল এর গুনগত মান আরো বৃদ্ধি পাবে। আপনারা আরো অনেক বেশী ব্যবসায়িক ভাবে সফল হবেন, ইনশাআল্লাহ।

  22. এক সময় বিশ্বাস করি নাই। এখন বিশ্বাস করি ইনকাম করা সম্ভব।

  23. I am an Enlish teacher in Dhaka(Higher Secondary).I saw your Bangla tutorial in Facebook,bought full web development cource,started watching—60.
    It seems not so hard to me. I want to continue my learning to earn from online.Is it possible?I need your help/suggestions.
    Thank You.
    Jashim.

    1. এটা আমাদের জন্য সত্যিই আনন্দের যে আপনি আমাদের টিউটোরিয়াল গুলো দিয়ে শিখতে পারছেন। হ্যাঁ, সঠিক ভাবে পুরো কোর্স শেষ করতে পারলে এবং কোর্স শেষে দেয়া গাইডলাইন ফলো করলে অবশ্যই ইন্টারনেট থেকে আয় করা সম্ভব। যে কোন সমস্যায় ডিভিডি তে দেয়া হেল্পলাইন ইমেইলে মেইল করবেন এবং আমাদের সিক্রেট ফেসবুক গ্রুপে ডিসকাশন করবেন। ধন্যবাদ 🙂

    1. ইংরেজীতে সাইট করবেন। আর বাংলাতেও এখন অনেক সাইট অ্যাড দেয়। আমাদের দেশীয় কোম্পানীই রয়েছে

  24. ভাই আমি বেকার আমার প্রযুক্তি সম্পকে শিখার আগ্রহ অনেক বেশি। ভাই আপনার সাথে আমি যোগাযোগ করতে চাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

১০ মিনিটে Slider Revolution দিয়ে ওয়েবসাইটে Awesome Slider তৈরি করা শিখুন!

স্লাইডার যে কোন ওয়েবসাইটের জন্য এক অতি গুরুত্বপূর্ণ ইলিমেন্ট। আমাদের ওয়েব গুরু কোর্সে আমরা দেখেছি কিভাবে Raw কোড এডিট করে স্লাইডার তৈরি করা যায়। কিন্তু

Read More »
wordpress-theme-customization-course

ইনশা-আল্লাহ্‌ ২০২০ সালেই তৈরি হবে ৫০০ সফল ওয়েব ডিজাইনার, সুযোগ প্রত্যেকের জন্য!!!

আপনি কি এমন একটি সহজ, বৈধ এবং হালাল ইনকাম মাধ্যম খুজছেন যেটা থেকে মাত্র কয়েক মাসেই অনলাইন থেকে আয় শুরু করা যাবে? সত্যি বলতে অনলাইন

Read More »

আইটি বাড়ি থেকে যারা ডোমেইন হোস্টিং কিনেছেন তারা SSL সার্টিফিকেট অ্যাক্টিভ করবেন যেভাবে

আইটি বাড়ি ইদানিং ডোমেইন হোস্টিং সার্ভিস দেয়া চালু করেছে। ইতিমধ্যে অনেকেই আমাদের সার্ভিস ব্যবহার করছেন। সুখবর হচ্ছে আমাদের সকল হোস্টিং গ্রাহকদের জন্য আমরা SSL সার্টিফিকেট

Read More »
7-ways-to-earn-with-seo

SEO শিখে অনালাইনে উপার্জনের ৭ টি উপায় [কাজ করুন বিড ছাড়া] -এবার বড় কিছুর চেষ্টা করুন

SEO- Search Engine Optimization অনলাইনে সেলস এন্ড মার্কেটিং ডিপার্টমেন্টের অন্যতম বৃহৎ অংশ। সাধারন কথায় বলতে গেলে গুগলে বা অন্যান্য সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে অনলাইন ভিত্তিক কোন

Read More »
earn money from internet with seo and web design

ওয়েব ডিজাইন এবং SEO, এ দুটো জানা থাকলে ইন্টারনেট থেকে হাজার উপায়ে আয় করা সম্ভব [গুজব নয়, সত্যি!]

অনলাইনে আয় বলতেই আমরা অনেকে মনে করি গ্রাফিক্স ডিজাইন, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, ওয়েব ডিজাইন, অমুক তমুক আরো ব্লা ব্লা ব্লা হাবিজাবি অনেক কিছুই। হ্যা, সত্যি সত্যি-ই

Read More »

আগামী ২০-৩০ বছরে চাকরী যেতে পারে ৬০-৮০% অসৃজনশীল পেশার চাকরিজীবীদের! বিশ্বাস হচ্ছে না? এটা পড়ুন

(নিচের লিখাটি হয়ত সবার বিশ্বাস হবে না, তবে হ্যা, পোস্টটি  বেশ কয়েকটি নামকরা পত্রিকা এবং এক্সাপার্টদের কেস স্টাডির প্রেক্ষিতে করা হয়েছে, পজিটিভ মেন্টালিটি থাকলেই কেবল পোস্টটি

Read More »